Home / দেশের খবর / আওয়ামী লীগের সম্মেলন ২৩-২৪ ডিসেম্বর

আওয়ামী লীগের সম্মেলন ২৩-২৪ ডিসেম্বর

শেরপুর ডেস্কঃ ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন ডিসেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহে। এক্ষেত্রে আগামী ২৩-২৪ দুই দিনব্যাপী সম্মেলন করার প্রস্তুতি নিয়ে এগোচ্ছে দলটি। এর আগে ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণ, জেলা কমিটি, মেয়াদোত্তীর্ণ সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের সম্মেলন শেষ করা হবে।

শুক্রবার (২৮ অক্টোবর) দলীয়প্রধান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনে অনুষ্ঠিতব্য আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকে এসব সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করা হবে। দলের একাধিক শীর্ষ নেতা ভোরের কাগজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্রের ৬ এর ১ অনুযায়ী, তিন বছর পর পর জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে দুই দিনব্যাপী দলটির সবশেষ (২১তম) সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২০১৯ সালের ২০-২১ ডিসেম্বর। একদিকে গঠনতন্ত্র রক্ষা, অন্যদিকে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে দলকে সুসংগঠিত করার লক্ষ্যে প্রতিটি মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটির সম্মেলন ও জাতীয় সম্মেলন করবে আওয়ামী লীগ।

জানা গেছে, চার সহযোগী ও দুই ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন- ছাত্রলীগ, যুব মহিলা লীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, তাঁতীলীগের সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করা হবে। তৃণমূল নেতাদের কথা শুনতে গণভবনে জেলা কমিটির নেতাদের সঙ্গে ধারাবাহিক বৈঠক করতে পারেন দলীয়প্রধান শেখ হাসিনা। সম্মেলনের তারিখ ঘোষণার পাশাপাশি আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে বিকাল ৪টায় অনুষ্ঠিতব্য এই বৈঠকে সারাদেশে সাংগঠনিক অবস্থা পর্যালোচনা ও দিকনির্দেশনা দান, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে প্রস্তুতি ও কৌশল নির্ধারণ করা হবে।

জানতে চাইলে সাংগঠনিক সম্পাদক ও হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন ভোরের কাগজকে বলেন, আজ জাতীয় সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ হতে পারে। এছাড়া সাংগঠনিক সবশেষ অবস্থা, মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটিগুলোর সম্মেলনের অগ্রগতি এবং দেশের আর্থসামাজিক পরিস্থিতি নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হবে।

অন্যদিকে সারাদেশে বিএনপির সমাবেশের পাল্টা জবাব ও সরকারবিরোধী অপতৎরতা রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করতে সারাদেশে রাজনৈতিক শক্তির মহড়া দিতে রূপরেখা ও কৌশল ঠিক করা হবে বৈঠকে। ডিসেম্বরে রংপুর সিটি নির্বাচন, বিএনপির আন্দোলন নিয়ে নিজেদের সাংগঠনিক কর্মসূচিসহ নানা বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত আসতে পারে। আসবে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়েও নানা দিকনির্দেশনা। এছাড়া বিভাগীয় সমাবেশ করারও পরিকল্পনা রয়েছে দলটির। বিবিধ আলোচনায় জেলহত্যা দিবস, বিজয়ের মাস ডিসেম্বরের কর্মসূচি পালনসহ বিভিন্ন সাংগঠনিক বিষয় নিয়ে আলাপ-আলোচনা হবে।

এ ব্যাপারে সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট আফজাল হোসেন ভোরের কাগজকে বলেন, কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকে সম্মেলনের দিনক্ষণ চূড়ান্ত হবে। সহযোগী-ভ্রাতৃপ্রতীম সংগঠনের সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ করা হবে। এছাড়া সাংগঠনিক বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিকনির্দেশনা দেবেন দলীয়প্রধান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

Check Also

সারা দেশে অভিযান চালাবে পুলিশ

শেরপুর ডেস্ক: মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) পুলিশ সদরদপ্তরের অপারেশন শাখার পাঠানো এক আদেশে, সারা দেশে অভিযান …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

2 + 12 =

Contact Us