সর্বশেষ সংবাদ
Home / দেশের খবর / নিত্যপণ্যের দাম নির্ধারণ করে দেবে সরকার

নিত্যপণ্যের দাম নির্ধারণ করে দেবে সরকার

শেরপুর ডেস্কঃ ভোজ্য তেলসহ ৯টি নিত্যপণ্যের দাম নির্ধারণ করে দেবে সরকার। ওইসব পণ্যের মূল্য নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে কোন বিক্রেতা বেশি নিলে তার বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেয়া হবে বলে সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

দাম নির্ধারণ করা পণ্যেগুলো মধ্যে রয়েছে- চাল, আটা, ময়দা, চিনি, মসুর ডাল, পেঁয়াজ, রড এবং সিমেন্ট। ট্যারিফ কমিশন আগামী ১৫ দিনের মধ্যে এসব পণ্যের যৌক্তিক মূল্য বের করবে।

নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য নিয়ে মঙ্গলবার বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত এক বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

বৈঠক শেষ ব্রিফিংয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি সাংবাদিকদের জানান, আন্তর্জাতিক বাজার দর ও অভ্যন্তরীণ উৎপাদন ও সরবরাহ পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে এই নয়টি পণ্যের যথার্থ দাম কি হওয়া উচিত তা নির্ধারণ করে দেবে সরকার।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, এখন থেকে কারসাজি করে অতিরিক্ত মূল্যে পণ্য বিক্রি করলে আর কোনো জরিমানা করা হবে না, সরাসরি তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে। সেই মামলায় সর্বোচ্চ তিন বছর পর্যন্ত শাস্তির বিধান রয়েছে।

তিনি বলেন, এতদিন ট‌্যারিফ কমিশন শুধু ভোজ্য তেল ও চিনির মূল্য নির্ধারণ করে দিত। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে বৈশ্বিক অস্থিতিশীলতা ও অভ্যন্তরীণ বাজারে ডলারের মূল্য বৃদ্ধির সুযোগ নিয়ে এই পণ্যগুলোর দাম অতিমাত্রায় বৃদ্ধি পেয়েছে। যা হওয়া উচিত ছিল না। বিষয়গুলো বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের নজরে এসেছে এবং তা নিয়ন্ত্রণে রাখতে ধারাবাহিক ভাবে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরসহ বিভিন্ন সংস্থার মাধ্যমে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করছে।

টিপু মুনশি বলেন, অভিযান চললেও প্রকৃত অর্থে যথার্থ দামে বাজারে স্থিতিশীলতা তৈরি করা যায়নি। এমন প্রেক্ষাপটে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্ট পণ্যগুলোর সব স্টক হোল্ডারদের নিয়ে এই বৈঠক হয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, সার্বিক বিবেচনায় পণ্যগুলোর দাম কি হওয়া উচিত তা নির্ধারণ করতে বাংলাদেশ ট্রেড এন্ড ট্যারিফ কমিশনকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তারা আগামী ১৫ দিনের মধ্যে এসব পণ্যগুলোর সংশ্লিষ্ট সব পর্যায়ের হোল্ডারদের নিয়ে আলোচনা করে যথার্থ দাম নির্ধারণ করবে।

তিনি বলেন, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশনসহ মাঠ পর্যায়ের দায়িত্বে থাকা সকল সংস্থাকে স্পষ্ট বলে দেওয়া হয়েছে কোন ব্যবসায়ী কোন পণ্যে কারসাজি করলে কিংবা অযৌক্তিক দাম রাখলেই মামলা দিতে হবে। শুধু জরিমানা করেই যেন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা শেষ করা না হয়।

বৈঠকে বাণিজ্যসচিব, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, বাংলাদেশ ট্রেড অ্যান্ড ট্যারিফ কমিশনের চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশনের চেয়ারম্যান, ব্যবসায়ীদের সংগঠন এফবিসিআইয়ের ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্সের সভাপতিও উপস্থিত ছিলেন।

Check Also

মিয়ানমার ইস্যুতে আমাদের সেনাবাহিনী প্রস্তুত

শেপুর ডেস্কঃ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, যুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করেছি, আমরা কাউকে কাউন্ট …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

nine + 4 =

Contact Us