সর্বশেষ সংবাদ
Home / খেলাধুলা / সিরিজ জিতল বাংলাদেশ

সিরিজ জিতল বাংলাদেশ

শেরপুর ডেস্কঃ টেস্ট এবং টি-টোয়েন্টি সিরিজে হারা টাইগাররা ওয়ানডে সিরিজে কি ভাবে বদলে গেল সেই হিসাব মেলাতে পারছে না ক্যারিবিয়ান সমর্থকরা। উইন্ডিজ মিডিয়াতো স্বাগতিক খেলোয়াড়দের নৈপুন্যে হতাশ।

বুধবার (১৩ জুলাই) দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচে উইন্ডিজকে ৯ উইকেটে হারিয়ে ওয়ানডে সিরিজ জিতে নিয়েছে টাইগাররা। প্রথম ম্যাচে ৬ উইকেটে জিতেছিল বাংলাদেশ। দক্ষিণ আফ্রিকার পর এবার উইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জিতল তামিম বাহিনী। টাইগারদের ওয়ানডেসিরিজ জয়ে অভিনন্দন জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, ইয়াসির আলী দলে নেই। তার পরও ঘরের মাঠে ওয়েষ্ট ইন্ডিজকে ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে ২-০ ব্যবধানে হারিয়ে বাংলা মায়ের দামাল ছেলেরা সিরিজ জিতেছে। ১৬ জুলাই শেষ ওয়ানডে ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। এ ম্যাচে তামিম বাহিনী জয় পেলে হোয়াইটওয়াশ হবে স্বাগতিকরা। গায়ানায় প্রথম ওয়ানডেতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে স্রেফ উড়িয়ে দিয়েছিল বাংলাদেশ। টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারলেও ওয়ানডেতে সেই ছাপ একদমই ছিল না বাংলাদেশের। নিজেদের প্রিয় ও স্বাচ্ছন্দ্যের ফরম্যাটে দাপট ধরে রেখে খেলে জয় পেয়েছে তামিম বাহিনী।

বুধবার ক্যারিবিয়ানদের হারিয়ে বাংলাদেশ ওয়ানডে ক্রিকেটে ৩১তম সিরিজ জিতেছে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে শেষ দশ ওয়ানডের দশটিতেই জিতেছে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে সিলেটে এই জয়রথের শুরু। সিলেট ঘুরে ডাবলিন। ডাবলিন থেকে টনটন। টনটন থেকে মিরপুর হয়ে চট্টগ্রাম। চট্টগ্রাম থেকে গানায়ার প্রভিডেন্স স্টেডিয়াম। সব ভেন্যুতেই চলছে টাইগারদের রাজত্ব। প্রতিটি ম্যাচেই বাংলাদেশ নিজেদের দাপট দেখিয়েছে। শ্রেষ্ঠত্ব বুঝিয়েছে। গায়ানায় প্রথম ওয়ানডে ম্যাচে ৬ উইকেটে উইন্ডিজকে হারিয়ে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে থাকা টাইগাররা গতকাল নাসুম আহমেদ এবং মেহেদী হাসান মিরাজের ঘূর্নিতে ৩৫ ওভারে ১০৮ রানে গুটিয়ে দেয় স্বাগতিকদের ইনিংস। সিরিজ জিততে ১০৯ রানের লক্ষ্য নিয়ে ব্যাট করতে নামেন ২০.৪ ওভারে ১ উইকেট হারিয়ে ১১২ রান সংগ্রহ করে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। ওপেনার তামিম ইকবাল ও নাজমুল হোসেন শান্ত ওপেনিংয়ে ৪৮ রানের পার্টনারশিপ গড়ে তোলেন। ব্যক্তিগত ২০ রানে সাজঘরে ফিরেন শান্ত। এর পর অধিনায়ক তামিম ইকবালের সঙ্গে দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে পার্টনানশিপ গড়ে তুলে দলের জয় নিশ্চিত করেন এই দুই ব্যাটার। তামিম ইকবাল ৬২ বল মোকাবেলা করে ৫০ ও লিটন দাস ২৭ বল থেকে ৩২ রান করে অপরাজিত থাকেন। তামিম তার ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ৫৩তম হাফ সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন। ১০ ওভার বল করে ৪ মেডেনসহ ১৯ রান দেয়া স্পিনার নাসুম আহমেদ ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হয়েছেন।

Check Also

এবারের বিশ্বকাপে যারা নেতৃত্ব দিচ্ছেন

শেরপুর ডেস্কঃ দরজায় কড়া নাড়ছে বিশ্বকাপের ২২তম আসর। এবার ৩২ দলের বিশ্বকাপের পর্দা উঠবে ২১ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

11 − four =

Contact Us