Home / দেশের খবর / বজ্রপাতে একদিনে ১৮ জনের মৃত্যু

বজ্রপাতে একদিনে ১৮ জনের মৃত্যু

শেরপুর ডেস্কঃ দেশের ছয় জেলায় বজ্রপাতে ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (১৮ মে) নেত্রকোনা, ফরিদপুর, সুনামগঞ্জ, মানিকগঞ্জ, কুমিল্লা ও ময়মনসিংহে পৃথক পৃথক স্থানে এসব দুর্ঘটনা ঘটে। বজ্রপাতে নিহতের অধিকাংশই কৃষিকাজের সঙ্গে সম্পৃক্ত।

জানা গেছে, মঙ্গলবার নেত্রকোনা জেলার চার উপজেলায় হাওরে কাজ করতে গিয়ে বজ্রপাতে ৯ জন নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে কেন্দুয়া উপজেলায় দুজন, মদনে দুজন, খালিয়াজুরীতে চারজন কৃষক ও পূর্বধলায় এক শিশু রয়েছে। এছাড়া বজ্রপাতে খালিয়াজুরীতে পাঁচজন ও মদনে চারজন আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার বিকেল পৌনে ৩টায় এ ঘটনা ঘটে।

ফরিদপুর জেলায় বজ্রপাতে নারীসহ চারজন নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার বিকেলের দিকে ফরিদপুর পৌরসভার পশ্চিম গঙ্গাবর্দী, ৫ নং ওয়ার্ডের মোল্লা ডাঙ্গী মহল্লা, সদর উপজেলার নর্থ চ্যানেল ও মধুখালী উপজেলার চাদপুরে এসব পৃথক দুর্ঘটনা ঘটে।

বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে স্বামী ও ছেলের সাথে মাঠ থেকে ধান নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে ফরিদপুর পৌরসভার ১১ নম্বর ওয়ার্ডের মোল্লাডাঙ্গী মহল্লায় বজ্রপাতে নিহত হন আনোয়ারা বেগম (৪৫)। তিনি আনোয়ারা বেগম মোল্লা ডাঙ্গী গ্রামের বাসিন্দা কৃষক কাবুল শেখের স্ত্রী।

মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার গিলন্ডে ঘুড়ি উড়াতে গিয়ে বজ্রপাতে এক স্কুলছাত্র নিহত হয়েছেন। এছাড়া ঘিওর উপজেলার বড়টিয়া গ্রামের বাসিন্দা আজমত আলীর (৫০) মৃত্যু হয়। এ

সুনামগঞ্জ জেলার দোয়ারাবাজার উপজেলায় আবু তাহের (৩৫) নামে এক যুবক বজ্রপাতে মারা যান। আবু তাহের দোয়ারা বাজার সদর ইউনিয়নের তেগাঙ্গা গ্রামের তাজ উদ্দিনের ছেলে।

কুমিল্লা জেলার হোমনা উপজেলার চান্দেরচর ইউনিয়নের সিতারামপুর গ্রামে মঙ্গলবার বিকালে মো. মোমেন (৩৫) নামের এক যুবকের বজ্রপাতে নিহত হয়েছেন।

ময়মনসিংহ জেলার তারাকান্দা উপজেলায় বজ্রপাতে আতিকুল ইসলাম নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হন আরও একজন। মঙ্গলবার দুপুর ২টায় উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের খলিশাজান গ্রামে খোলা মাঠে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

Check Also

দেশের উন্নয়ন আওয়ামী লীগের জন্য: প্রধানমন্ত্রী

শেরপুর ডেস্কঃ আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, মানুষের কষ্ট দুঃখ আওয়ামী লীগ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

16 + 9 =

Contact Us