Home / বগুড়ার খবর / জেলার খবর / রাত পোহালেই বগুড়া সদরের উপ নির্বাচন

রাত পোহালেই বগুড়া সদরের উপ নির্বাচন

শেরপুর নিউজ ২৪ ডট নেটঃ জাতীয় সংসদের ৪১ বগুড়া- ৬ ( বগুড়া সদর) আসনের উপনির্বাচনে সকল প্রচার-প্রচারণা শেষ হয়েছে গত শুক্রবার মধ্যরাত থেকে। রাত পোহালেই আগামীকাল ২৪ জুন (সোমবার) ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। বগুড়ার এ নির্বাচনে ভোটারদের উদ্বুদ্ধ করাসহ সচেতনতা বাড়াতে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) এর ব্যবহার হাতে কলমে প্রশিণ সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন।
এ উপলে সকল আয়োজন সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন। এ আসনের নির্বাচনের মাঠে ছয়জন প্রার্থী থাকলেও মূল লড়াই হবে বড় তিন দল আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টির দলীয় প্রতীক নৌকা, ধানের শীষ, লাঙ্গল মার্কা প্রাপ্ত প্রার্থীদের মধ্যে।
বিএনপি’র মহাসচিব ফখরুল ইসলাম আলমগীরের আসনে উপ-নির্বাচনে ধানের শীষের প্রার্থী বগুড়া-৫ আসনের ৪ বার নির্বাচিত সাবেক সাংসদ জিএম সিরাজ। এদিকে নৌকার প্রার্থী টি জামান নিকেতা এবারই প্রথম সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও এ আসনে ২০১৪ সালের নির্বাচনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত জাতীয় পার্টির যুগ্ম মহা-সচিব জেলা জাতীয় পার্টিল সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম ওমর আবারো এ নির্বাচনে অংশগ্রহন করছেন।
সরকারী দল আওয়ামী লীগের প্রার্থী নির্বাচনী প্রচারণায় সরকারের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে এবং বগুড়ার আরো উন্নয়নে নৌকায় ভোট চাওয়া হয়েছে।
অপরদিকে দলীয় চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি, তারেক রহমানকে দেশে ফেরানো ছাড়াও জিয়া পরিবারের অত্যন্ত মর্যাদার এই আসন ধরে রাখতে ধানের শীষে ভোট চাইছে বিএনপি। অন্যদিকে জাতীয়পার্টির সাংসদ থাকাকালীন সময়ে বগুড়ার এ আসনে অনেক উন্নয়ন হয়েছে দাবী করে ভোটারদের কাছে নতুন প্রত্যাশার সম্ভাবনায় ভোট চাওয়াতে কমতি রাখেনি। তবে বড় দুই দলের পাশাপাশি জাতীয় পার্টির প্রার্থীকে এই নির্বাচনে মর্যাদার লড়াই হিসেবে দেখছে। ভোটারদের কাছেও ভোট প্রার্থনা করা হয়েছে সেভাবেই।
এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের টি জামান নিকেতা (নৌকা), বিএনপির গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ (ধানের শীষ), জাতীয় পার্টির নুরুল ইসলাম ওমর (লাঙ্গল), মুসলিম লীগের রফিকুল ইসলাম (হারিকেন),বাংলাদেশের কংগ্রেসের মুনসুর রহমান (ডাব) ও মিনহাজ মন্ডল
(আপেল) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। আরেক স্বতন্ত্র প্রার্থী সৈয়দ কবির আহমেদ মিঠু (ট্রাক) নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন।
এ আসনের নির্বাচনে ১শ ৪১টি কেন্দ্রে ৯৬৫টি কে ১লাখ ৯৫ হাজার ৭৯০জন পুরুষ, ১লাখ ৯১ হাজার ৬৪৮জন মহিলা সহ সর্বমোট মোট ৩লাখ ৮৭ হাজার ৪৫৮জন ভোটার তাদের ভোটারাধিকার প্রয়োগ করবেন।
বগুড়া জেলা পুলিশের বিশেষ শাখা সূত্রে জানা গেছে, ২৪ জুন বগুড়া-৬ (সদর) আসনের নির্বাচনে ১৪১টি কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এসব কেন্দ্রের মধ্যে ১১১টি কেন্দ্র ‘অতি গুরুত্বপূর্ণ’ বা ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। জেলার বিশেষ শাখা (ডিএসবি) পুলিশের গোয়েন্দা প্রতিবেদনের ভিত্তিতে কেন্দ্রগুলো ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে বলে পুলিশের একটি সূত্র জানিয়েছে।
এ প্রসঙ্গে বগুড়ার পুলিশ সুপার মো. আলী আশরাফ ভূঞা বলেন, এসব ভোট কেন্দ্রে যেকোনো ধরনের গোলযোগ ও সহিংসতা এড়াতে তিন স্তরের নিরাপত্তাবলয় সার্বনিক প্রস্তত রাখা হয়েছে। তিনি আরো জানান, প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবিসহ আইনশৃঙ্খলা রাকারী বাহিনীর তিন স্তরের কঠোর নিরাপত্তাবলয় নিশ্চিত করা হবে। নির্বাচনী এলাকায় যেকোনো ধরনের গোলযোগ বা নাশকতা ঠেকাতে আইনশৃঙ্খলা রাকারী বাহিনীর সদস্যদের সঙ্গে কাজ করবেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা।
বগুড়া গোয়েন্দা পুলিশ বিভাগ(ডিএসবি) সূত্রে জানা গেছে, বগুড়া সদর উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন এবং ১টি পৌরসভার ২১টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত বগুড়া-৬ আসন। আগামীকাল ২৪ জুন অনুষ্ঠেয় এই আসনের নির্বাচনে নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য আইনশৃঙ্খলা রাকারী বাহিনীর প্রায় সাড়ে তিন হাজার সদস্য কাজ করবেন। এর মধ্যে প্রায় ১ হাজার পুলিশ, ৪০০ বিজিবি সদস্য, র‌্যাবের ৪৫০ সদস্য এবং ১ হাজার ৭০০ আনসার সদস্য রয়েছেন। বিগত নির্বাচনে
প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে আনসার সদস্যদের সঙ্গে একজন পুলিশ দায়িত্ব পালন করত। এবার ভোটগ্রহণের দিন ঝুঁকিপূর্ণ বা গুরুত্বপূর্ণ ১১১টি ভোট কেন্দ্রে একজন পরিদর্শক বা উপ-পরিদর্শক পদমর্যাদার একজন কর্মকর্তার নেতৃত্বে পাঁচজন পুলিশ মোতায়েন থাকবে।
অন্য ৩০টি কেন্দ্রে পুলিশ মোতায়েন থাকবে চারজন করে। প্রতিটি কেন্দ্রে ১২ জন করে আনসার বাহিনীর সদস্যরা দায়িত্ব পালন করবেন বলে ডিএসবি পুলিশ সুত্রে জানা গেছে।
ভোটগ্রহণের আগেই মাঠে নামবেন ১৩ প্লাটুন বিজিবি সদস্য। প্রতিটি ইউনিয়নে এক প্লাটুন এবং বগুড়া শহরে দুই প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন থাকবে। প্রতিটি প্লাটুনে বিজিবির সদস্য থাকবেন ২০ থেকে ৩০ জন। ভোটগ্রহণের দিন র‌্যাবের ১৫ প্লাটুন সদস্য আইনশৃঙ্খলা রার দায়িত্বে থাকবে। এর বাইরে ১০ সদস্যের ১৩টি স্ট্রাইকিং ফোর্স যে কোনো ধরনের পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য ভোটের দিন কেন্দ্র এলাকায় প্রস্তুত থাকবে। ২৫জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে সহিংসতা মোকাবিলার জন্য প্রস্তুত থাকবে ২৬টি ভ্রাম্যমাণ দল।
বগুড়া সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকতা এসএম জাকির হোসেন জানান, সোমবার ২৪ জুন শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহণের জন্য ১৪১ জন প্রিজাইডিং অফিসার, ৯৫৪ জন পোলিং অফিসার প্রায় ৩ হাজার নির্বাচন কর্মকর্তা নিয়োগ করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ধানের শীষ প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে প্রায় দেড় লাখ ভোটের ব্যবধানে মহাজোটের প্রার্থী নুরুল ইসলাম ওমরকে হারিয়ে বিজয়ী হন। পরে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর শপথ না নেয়ায় আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী এই আসনে আগামীকাল ২৪ জুন ইভিএমে ব্যবহার করে ভোটগ্রহণ করা হবে।

Check Also

শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিনে বগুড়ায় আ. লীগের কর্মসূচি

শেরপুর ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর সোমবার। এ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × three =