Home / বগুড়ার খবর / ধুনট / ধুনটে দুই সেটেলমেন্ট কর্মকর্তার শাস্তির দাবীতে ঘেরাও কর্মসূচি পালন

ধুনটে দুই সেটেলমেন্ট কর্মকর্তার শাস্তির দাবীতে ঘেরাও কর্মসূচি পালন

এম.এ.রাশেদঃ বগুড়ার ধুনটে ভুক্তভোগী কৃষকেরা ভূমি রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের ব্যানারে দুই সেটেলমেন্ট কর্মকর্তার শাস্তির দাবীতে ঘেরাও কর্মসূচি পালন করেছে। মৃত ব্যক্তিকে বাদি সাজায়া ৩১ ধারায় আপিল কেস রুজু ও একজনের জমি অন্য জনের নামে রেকর্ড করে দেওয়ার প্রতিবাদে সাবেক দুই সেটেলমেন্ট কর্মকর্তার দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবীতে ধুনটের ক্ষতিগ্রস্থ শত শত কৃষক রবিবার সেটেলমেন্ট অফিস ঘেরাও কর্মসূচি পালন করেছে।
বেলা ১১টায় ধুনট শহীদ মিনারে প্রত্যন্ত অঞ্চলের ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক সমবেত হয়ে ভূমি রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের ব্যানারে একটি বিক্ষোভ মিছিল বাজারের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে সেটেলমেন্ট অফিস ঘেরাও করে।
এসময় এক পথসভায় ভূক্তভোগী তারাকান্দি গ্রামের সাইদুল রহমান ও দিদারুল ইসলাম বলেন, প্রায় ৭০ বছর যাবত বসবাস করা তাদের আঘাপাকা ঘরবাড়ী ২০০৯ সালে মৃত্যু বরনকারী তাদের গ্রামের মজিবর রহমানসহ কয়েকজনকে বাদি সাজায়া ধুনট থেকে বদলী হয়ে যাওয়া সহকারী সেটেলমেন্ট অফিসার আরিফুর রহমান ২০১৬ সালে ধুনট সেটেলমেন্ট অফিসার ৯৬২২/১৬নং আপিল কেস সৃষ্টি করে। ওই কেসে মোটা অংকের ঘুষ নিয়ে তাদের ঘরবাড়ী আপিলকারীদের নামে রেকর্ড করে দেয়। প্রতিকার চেয়ে সাইদুর রহমান ও দিদারুল ইসলাম প্রথমে বগুড়া জোনাল সেটেলমেন্ট অফিসে অভিযোগ করে। সেখানে সহকারী সেটেলমেন্ট অফিসার মমতাজ আলী লক্ষাধিক টাকা ঘুষ দাবী করেন। এরপর তারা নিরুপায় হইয়া মহাপরিচালক ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তরে একখানা অভিযোগ দেয়। ওই অভিযোগের প্রেক্ষিতে গত বছরের ১৯ মার্চ ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক মজিবুল হক ধুনট থেকে ওই মামলার নথি তলব পূর্বক যাচাই বাছাই করেন। পরে সহকারী সেটেলমেন্ট অফিসার আরিফুর রহমানের ঘুষ দুর্নীতির অভিযোগ প্রমান পান। ওই কর্মকর্তা শুদ্ধ রেকর্ড না দিয়া অবৈধ ইচ্ছাকৃত ভাবে অশুদ্ধ রেকর্ড প্রদান করায় তার (আরিফুর রহমান) বিরুদ্ধে কেন বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে না মর্মে কারন দর্শানোর নোটীশ দেন। এবং একই সাথে ওই মামলার শুদ্ধ রেকর্ড করে দেওয়ার জন্য বগুড়া জোনাল সেটেলমেন্ট অফিসারকে পৃথক একটি পত্র দেন।
ভুক্তভোগীরা বলেন, দীর্ঘ এক বছর পেরিয়ে গেলেও সহকারী সেটেলমেন্ট অফিসার আরিফুর রহমানের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়াতো দূরের কথা এখন পর্যন্ত তাদের বসতবাড়ীর শুদ্ধ রেকর্ড পাননি। শৈলমারী গ্রামের ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক খোদাবক্স অভিযোগ করে বলেন, তার পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া জমি দাবী করে ওয়ারিশ নন এমন ব্যক্তি ধুনট সেটেলমেন্ট অফিসে ২০১৬ সালে একটি আপিল কেস দায়ের করে। একই বছর জমির কাগজপত্র দেখে সহকারী সেটেলমেন্ট অফিসার আরিফুর রহমান তার পক্ষে রায় দেয়। কিন্তু এক বছর পর তিনি জানতে পারেন, তার ওই রায় পরিবর্তন করে প্রতিপক্ষের নামে তার পৈত্রিক সম্পত্তি রেকর্ড করে দেওয়া হয়েছে। ধুনট সেটেলমেন্ট অফিস থেকে রায়ের জাবেদা নকল সংগ্রহ করে অবগত হোন। একই মামলায় দুই রকমের রায় দেওয়ায় প্রতিকার চেয়ে তিনি ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বরাবর একখানা অভিযোগ দেন। ওই অভিযোগের প্রেক্ষিতে অধিদপ্তরের কর্মকর্তা ধুনট থেকে কেসের নথিপত্র তলব পূর্বক যাচাই-বাছাই করে একই মামলায় দু’রকমের রায় দেওয়ার বিষয়টি প্রমান পান। পরে আরিফুর রহমানের বিরুদ্ধে কেন বিভাগীয় মামলা করা হবে না, এই মর্মে কারন ব্যাখার নোটীশ দেন। ভুক্তভোগী খোদাবক্সের অভিযোগ, ওই নোটীশ দেওয়ার দীর্ঘদিন পেরিয়ে গেলেও, ওই অফিসারের বিরুদ্ধে কোন রকম বিভাগী ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি এবং তার জমির রেকর্ড সংশোধন করে দেওয়া হয়নি।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক খলিলুর রহমান, আব্দুল বারিক, আজিজার রহমান, বেলায়েত হোসেন বেলাল, আদিবাসী সমিতির নেতা স্বপন রবিদাস। এসময় শত শত ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক তাদের জমি অন্য জনের নামে অবৈধ রেকর্ড করে দেওয়ার প্রতিকার চান। বক্তাগন বলেন, আগামী ১৫ দিনের মধ্যে ধুনটের সমস্ত ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের ভুয়া রেকর্ড সংশোধন করা না হলে বগুড়া জোনাল সেটেলমেন্ট অফিস ও এরপর ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের কার্যালয় ঘেরাও করার আল্টিমেটাম দেন।

সেটেলমেন্ট কর্মকর্তা মমতাজ আলীর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে জানান। বর্তমানে দুপচাঁচিয়ায় কর্মরত সহকারী সেটেলমেন্ট কর্মকর্তা আরিফুর রহমানের মুঠোফোনে কল করে ফোন না ধরায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। তবে ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তরে উপপরিচালক সৈয়দ মুজিবুল হকের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আরিফুর রহমান ও মমতাজ আলীর বিরুদ্ধে ঘুষ দুর্নীতির অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় একাধিক বিভাগী মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

Check Also

ধুনটে বজ্রপাতে শিশুর মৃত্যু

শেরপুরনিউজ২৪ডটনেটঃ বগুড়ার ধুনটে বৃষ্টির মাঝে আম কুড়াতে গিয়ে আদিল হোসেন (৮) নামের এক শিশুর বজ্রপাতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 × three =

Contact Us