সর্বশেষ সংবাদ
Home / রাজনীতি / বিএনপি নেতাকর্মীরা হতাশ নয়-ড.মঈন খান

বিএনপি নেতাকর্মীরা হতাশ নয়-ড.মঈন খান

 

 

শেরপুর ডেস্ক: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান বুধবার সকালে সদ্য কারামুক্ত যুবদল ঢাকা মহানগর উত্তরের সাবেক সভাপতি এসএম জাহাঙ্গীরের উত্তরার বাসায় এবং পরে সদ্য কারামুক্ত ঢাকা মহানগর উত্তর যুবদলের সদস্য সচিব সাজেদুল মিরাজের বাসায় যান এবং দলের পক্ষ থেকে সমবেদনা জানান

বিএনপির কোনো নেতাকর্মী হতাশ নয় বলে মন্তব্য করেছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান। তিনি অভিযোগ করে বলেন, পৃথিবীতে অন্যকোনো দেশের বিরোধীদলের নেতাকর্মীদের নামে এত মামলা নেই; এত নির্যাতন-নিপীড়ন করা হয় না। এই প্রহসন থেকে মুক্তি পেতে গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে সরকারকে হটানো হবে।

বুধবার (৩ এপ্রিল) সকালে সদ্য কারামুক্ত দলীয় নেতাদের বাসায় গিয়ে এসব কথা বলেন। প্রথমে তিনি সদ্য কারামুক্ত যুবদল ঢাকা মহানগর উত্তরের সাবেক সভাপতি এসএম জাহাঙ্গীরের উত্তরার বাসায় যান। ৩২৭ মামলার আসামী হয়ে ৩৬৩ দিন কারাভোগের পর ৪ মার্চ কারামুক্ত হন জাহাঙ্গীর। পরে তিনি সদ্য কারামুক্ত ঢাকা মহানগর উত্তর যুবদলের সদস্য সচিব সাজেদুল মিরাজের বাসায় যান এবং দুটি পরিবারের প্রতি দলের পক্ষ থেকে সমবেদনা জানান।

মঈন খান বলেন, বিরোধীদলের বিরুদ্ধে এক লাখ মামলা দেয়া হয়েছে। এসব মামলায় ৫০ লাখ নেতাকর্মীকে আসামি করা হয়েছে। পৃথিবীতে তো দেশ রয়েছে ২শ টি। অনেক অত্যাচারী সরকার আছে। কোনো সরকার বিরোধীদলের নেতাকর্মীদের ওপর এত মামলা দেয়নি বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, পাকিস্তান আমলে ২২ পরিবার দেশ শোষণ করত। এখন করে ২২২ পরিবার। তারা দেশের সম্পদ লুট করে বিদেশে পাচার করছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। বাংলাদেশের সাধারণ মানুষের ত্রাহী অবস্থা। সারাদিন রোজা রেখে মানুষ ইফতার করতে পারে না। সরকারকে এসব প্রশ্নের জবাব দিতে হবে। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান সারাদেশের নির্যাতিত নেতাকর্মীদের খোঁজ খবর নিচ্ছেন বলেও জানান মঈন খান ।

দেশের জনগণের কারণে ভোট বর্জনের কারণে সরকার দিশাহারা হয়ে পড়েছে বলে মন্তব্য করে বিএনপির এই নেতা বলেন, আমরা দেশের কোটি কোটি মানুষকে একতরফা ভোট বর্জনের জন্য আহ্বান জানিয়েছিলাম। আমাদের আহ্বানে সাড়া দিয়ে ৯৫ ভাগ মানুষ ভোটকেন্দ্রে যায়নি। এতে সরকার দিশাহারা হয়ে পড়েছে। এই কারণে বিএনপি মহাসচিব সহ সারাদেশের হাজার হাজার নেতাকর্মীকে মামলা হামলা নির্যাতন ও গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠিয়েছে সরকার। জেলের ভেতরেও বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর দুঃসহ নির্যাতন করেছে।

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দলীয় প্রতীক নিয়ে মঈন খান বলেন, ধোঁকাবাজি প্রহসনের নির্বাচনে আমরা যাবো না। জনগণের ইচ্ছায় নির্বাচনে যাবো। সরকারকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে তারা ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দিবে কি না। আওয়ামী লীগ ক্ষমতার জন্য রাজনীতি করে। আর বিএনপি মানুষের অধিকার রক্ষার জন্য রাজনীতি করে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

Check Also

বিএনপিপন্থী আইনজীবী ফোরাম থেকে ব্যারিস্টার খোকনকে অব্যাহতি

  শেরপুর ডেস্ক:দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নবনির্বাচিত সভাপতি ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 − 1 =

Contact Us