সর্বশেষ সংবাদ
Home / খেলাধুলা / হতাশার দিনে স্বস্তি হাসান-খালেদের বোলিং

হতাশার দিনে স্বস্তি হাসান-খালেদের বোলিং

শেরপুর ডেস্ক: চট্টগ্রাম টেস্টে প্রথম ইনিংসেই ৫৩১ রানের বিশাল সংগ্রহের পরেই ম্যাচে লঙ্কানদের জয় একপ্রকার নিশ্চিত হয়ে যায়। লঙ্কানদের এই রান পাহাড়ের জবাবে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ২০০ রানও করতে পারেনি বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কা চাইলে বাংলাদেশকে ফলো-অন করিয়েই ম্যাচের ফলাফল নিশ্চিত করতে পারত। তবে তার বদলে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করে বাংলাদেশকে ম্যাচ থেকে ছিটকে ফেলার সিদ্ধান্ত নেয় সফরকারীরা।

তবে চা বিরতির পর ব্যাটিংয়ে নেমে দ্রুত রান তুলতে গিয়ে টাইগার দুই পেসার হাসান মাহমুদ ও খালেদ আহমেদের বোলিং তোপে একশর আগেই ৬ উইকেট হারায় লঙ্কানরা। তবে ইতোমধ্যেই তাদের লিড ৪৫৫ রানে গিয়েছে। তৃতীয় দিনশেষে বাংলাদেশের থেকে এগিয়ে লঙ্কানরা।

৩৫৩ রানের বিশাল লিড নিয়ে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে শ্রীলঙ্কা। তবে প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসে রান তুলতে পারেনি লঙ্কানরা। দলের খাতায় ১২ রান যোগ হতে আউট হন দিমুথ করুনারতেœ। পরের ওভারেই আউট হন কুশাল মেন্ডিস। উইকেট দুটি নেন হাসান ও খালেদ।

ব্যক্তিগত ৭ রানে ফিরতে পারতেন ম্যাথিউস। তবে আবারও সেই ক্যাচ মিস। শাহাদাত হোসেন দীপু ক্যাচ ছাড়লে জীবন পান এই লঙ্কান ব্যাটার।

চার ওভার বিরতি দিয়ে আক্রমণে এসে ওপেনার নিশান মাদুশকাকে ফেরান হাসান। পরের ওভারে আক্রমণে এসে হাসান আবার ফেরান দিনেশ চান্দিমালকে। দলীয় ৭২ রানে চতুর্থ উইকেট হারায় লঙ্কানরা।

এক ওভার পর আক্রমণে এসে হাসান ফেরান লঙ্কান অধিনায়ক ধনাঞ্জয়া ডি সিলভাকে। অফ স্টাম্পের বাইরের বলে ধনাঞ্জয়া খোঁচা দিয়ে লিটন দাসের গ্লাভসবন্দি হন। প্রথম ইনিংসে ২ উইকেট নেওয়া হাসান এ ইনিংসে পেয়ে যান ৪ উইকেটের দেখা।

শেষ দিকে কামিন্দু মেন্ডিসকে ফেরান খালেদ। যদিও শুরুতে আম্পায়ার আউট দেননি। খালেদের ফুল লেন্থের বলে ড্রাইভ করতে চেয়েছিলেন কামিন্দু। বল-ব্যাটে ছুঁয়ে গেছে উইকেটের পেছনে লিটনের হাতে। আবেদনে আম্পায়ার সাড়া না দেওয়ায় রিভিউ নিয়ে উইকেটটি আদায় করে নেয় বাংলাদেশ। ২০ ওভার শেষে ৮৯ রানে ষষ্ঠ উইকেট হারায় লঙ্কানরা। শেষ পর্যন্ত ২৫ ওভার খেলে ১০২ রানে দিন শেষ করে সফরকারীরা। তাতে ইতোমধ্যেই ৪৫৫ রানের বিশাল পাহাড় দাঁড় হয়ে গেছে শান্ত বাহিনীর সামনে। চতুর্থ দিনে যেটা আরও বড় করার লক্ষ্য লঙ্কানদের।

সিলেটে প্রথম টেস্টে ৩২৮ রানের বড় ব্যবধানে হারা বাংলাদেশের পক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে তাই ঘুরে দাঁড়ানো প্রায় অসম্ভব। অবিশ্বাস্য কিছু না ঘটলে হার এড়িয়ে ড্র করাও সম্ভব হবে না লাল সবুজের প্রতিনিধিদের জন্য। ২-০ ব্যবধানে সিরিজটা তাই অনেকটা নিশ্চিত হয়ে গেছে ধনাঞ্জয়াদের।

Check Also

লাল কার্ডের পর নিষেধাজ্ঞা পেলেন রোনালদো

শেরপুর ডেস্ক: আবারো নিষেধাজ্ঞায় পড়লেন পর্তুগিজ তারকা ফুটবলার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। সৌদি সুপার কাপের ম্যাচে আল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 − 1 =

Contact Us