সর্বশেষ সংবাদ
Home / অর্থনীতি / পোশাকের দাম বাড়াতে ক্রেতাদের চাপ দিন-বিজিএমইএ

পোশাকের দাম বাড়াতে ক্রেতাদের চাপ দিন-বিজিএমইএ

শেরপুর নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশের তৈরি পোশাক খাতে চাপ সৃষ্টির সুপারিশ না করে যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসম্যানদের ক্রেতা প্রতিষ্ঠানকে পোশাকের মূল্য বৃদ্ধির জন্য চাপ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুতকারক ও রপ্তানিকারক সমিতি (বিজিএমইএ)। গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর উত্তরায় বিজিএমইএ কমপ্লেক্সে এক সংবাদ সম্মেলনে এ আহ্বান জানান সংগঠনটির সভাপতি ফারুক হাসান। আগামী ২৩ ও ২৪ ডিসেম্বর অনুষ্ঠেয় ‘বিজিএমইএ ক্যারিয়ার সামিট’ বিষয়ে জানাতে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

গত ১৫ ডিসেম্বর পোশাক শ্রমিকদের ন্যায্য মজুরি ও অধিকার রক্ষায় যুক্তরাষ্ট্রের আট কংগ্রেসম্যান বাংলাদেশের সরকারকে চাপ দিতে আন্তর্জাতিক ক্রেতা সংগঠন আমেরিকান অ্যাপারেল অ্যান্ড ফুটওয়্যারকে (এএএফএ) চিঠি দিয়েছেন। শ্রমিকদের দাবিকৃত মাসিক ২৩ হাজার টাকা মজুরি না মানা লজ্জাজনক বলে মনে করেন এই মার্কিন কংগ্রেসম্যানরা।

এ বিষয়ে বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান গতকাল সংবাদ সম্মেলনে বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসম্যানদের চিঠির বিষয়টি আমরা জেনেছি। এ বিষয়ে বিস্তারিত বলতে পারছি না। তবে যতটুকু ধারণা, তারা ক্রেতা সংগঠনকে বাংলাদেশের ওপর চাপ তৈরি অনুরোধ করেছেন। এটি তাদের বিষয়। এটি যুক্তরাষ্ট্র সরকারের কোনো বিষয় না।

তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের নতুন যে শ্রমনীতি, সেখানে তারা শ্রমিক অধিকার ও আইনের বিষয়ে বলেছে। এ ক্ষেত্রে আমরা আন্তর্জাতিক নিয়ম ও অভ্যন্তরীণ আইন সঠিকভাবে পালন করে কার্যক্রম চালাচ্ছি। আর নিয়ম মানলে মার্কিন কোনো চাপ থাকার কথা নয়। কংগ্রেসম্যানদের বলব, তারা যেন ক্রেতা প্রতিষ্ঠানকে আমাদের ওপর চাপ দিতে না বলে। ক্রেতারা যাতে আমাদের পোশাকের মূল্য বৃদ্ধি করে, সে বিষয়ে যেন তারা চাপ সৃষ্টি করে। আর পোশাকের মূল্য বৃদ্ধি হলে আমাদের শিল্প, শ্রমিক সবাই ভালো থাকবে।

অন্য এক প্রশ্নের জবাবে বিজিএমইএ সভাপতি বলেন, বিজিএমইএর পক্ষ থেকে ২০২২ সালের শেষে পূর্বাভাস দিয়েছিলাম এ বছরের (২০২৩) বাণিজ্য কিছুটা খারাপ হবে। এটি এখন বাস্তব দেখা যাচ্ছে। কারণ, বিশ্বের সব দেশেই রপ্তানি নেতিবাচক ধারায় রয়েছে। ভোক্তারা তাদের ব্যবহার কমিয়েছে। আগামী বছর আরও কমতে পারে। আর দেশের রাজনীতির বিষয় রাজনীতিবিদদের। তারা দেশের জন্য, জনগণের জন্য রাজনীতি করেন। জনগণের ক্ষতি হয় এমন কোনো রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড আমরা আশা করি না। আমরা চাই যাতে ব্যবসায়িক পরিবেশ বজায় থাকে।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, পোশাক শিল্পে বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্র্যাজুয়েট এবং নেতৃস্থানীয় কোম্পানির মধ্যে সংযোগ স্থাপন করার লক্ষ্যে আগামী ২৩ ও ২৪ ডিসেম্বর প্রথম ‘বিজিএমইএ ক্যারিয়ার সামিটি’ অনুষ্ঠিত হবে। ৪০টিরও বেশি নিয়োগদানকারী প্রতিষ্ঠানসহ বেশ কিছু বিশ্ববিদ্যালয় এতে অংশ নেবে। এ ছাড়া বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ড প্রতিনিধিরা উপস্থিত থেকে বাংলাদেশের পোশাক শিল্প বিষয়ে তাদের অভিজ্ঞতা তুলে ধরবেন।

দুদিনের আয়োজনে দেশের সব সরকারি-বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়, টেক্সটাইল কলেজ, বিশেষায়িত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শেষ বর্ষের এবং প্রাক্তন শিক্ষার্থী, যারা পোশাক শিল্পে চাকরি করতে ইচ্ছুক, তাদের জন্য এখানে জীবনবৃত্তান্ত জমা নেওয়াসহ ইন্টারভিউর ব্যবস্থা থাকবে।

 

Check Also

৭ মাসে রেমিট্যান্স এসেছে এক লাখ ৪২ হাজার কোটি টাকা

শেরপুর নিউজ ডেস্ক: অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী জানিয়েছেন, চলতি অর্থবছরের (২০২৩-২৪) প্রথম সাত মাসে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

three × 2 =

Contact Us