সর্বশেষ সংবাদ
Home / খেলাধুলা / জানুয়ারিতে আবার দেশ জুড়ে ক্রিকেট উৎসব

জানুয়ারিতে আবার দেশ জুড়ে ক্রিকেট উৎসব

শেরপুর নিউজ ডেস্ক: গেল বছর এই ডিসেম্বর মাস থেকেই বাংলাদেশের ওয়ানডে বিশ্বকাপ নিয়ে স্বপ্ন বোনা শুরু হয়েছিল। কারণ ঐ মাসে ঘরের মাটিতে ভারতের বিপক্ষে ২-১ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজ জিতেছিলেন টাইগাররা। এর পর ঐ স্বপ্ন আরও চাঙ্গা হয় জানুয়ারিতে অনুষ্ঠিত হওয়া বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) দিয়ে। কারণ ঐ আসর থেকে তরুণ বেশ কিছু মুখ উঠে আসে জাতীয় দলে। যদিও বিশ্বকাপে আশানুরূপ পারফরম্যান্স হয়নি বাংলাদেশের।

তবে পাইপলাইনে যে তরুণ বেশ কিছু খেলোয়াড় রয়েছে তা উঠে আসে এই বিপিএলের মাধ্যমেই। বছর ঘুরে আরেকটি নতুন বছর চলে এসেছে। আর নতুন বছরের শুরুতেই দেশের ক্রিকেট সমর্থকদের জন্য অপেক্ষা করছে বিপিএলের নতুন আরেকটি আসর।

প্রতি বছরই জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে অনুষ্ঠিত হয় বিপিএল তবে আসন্ন আসরটি যে শুরু হতে খানিকটা দেরি হবে তা আগে থেকেই জানা ছিল। কারণ আগামী বছরের শুরুতে অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশের জাতীয় নির্বাচন। আর আয়োজকরা জানিয়েছিল নির্বাচনের পরপরই আসরের খেলা গড়াবে মাঠে। তবে তা কবে নাগাদ তা এতদিন ছিল অজানা। অবশেষে তা সামনে এলো।

গতকাল সন্ধ্যায় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে আসন্ন বিপিএলের আসরের পূর্ণাঙ্গ সূচি প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। বরাবরের মতো এবারও এক দিনে অনুষ্ঠিত হবে দুটো করে ম্যাচ। দিনের প্রথম ম্যাচ দুপুর দেড়টায় এবং দ্বিতীয় ম্যাচ শুরু হবে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা থেকে। তবে শুক্রবার খেলা শুরু হবে নির্ধারিত সময়ের আধঘণ্টা পর।

সোমবার বিসিবির প্রকাশিত সূচি অনুসারে ঢাকা, সিলেট ও চট্টগ্রামে ৪৩ দিনে খেলা হবে ৪৬ ম্যাচ। আগামী ১৯ জানুয়ারি কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স-দুর্দান্ত ঢাকার ম্যাচ দিয়ে মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে পর্দা উঠবে এবারের বিপিএল আসরের। দিনের অপর ম্যাচে সন্ধ্যায় মুখোমুখি হবে সিলেট স্ট্রাইকার্স-চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। ঢাকায় প্রথম ধাপের খেলা চলবে ২৩ জানুয়ারি পর্যন্ত।

এরপর দলগুলো উড়াল দেবে সিলেটে। চায়ের নগরীতে খেলা চলবে ৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। তিন দিন বিরতি দিয়ে মাঝখানে ম্যাচ হবে ১২টি। সিলেট পর্ব শেষে বিপিএল আবার গড়াবে রাজধানীতে। ১০ ফেব্রুয়ারি ঢাকা পর্ব শেষে ?তৃতীয় ভেন্যু চট্টগ্রামের সাগরিকার পাড়ে চলে যাবে ফ্রাঞ্চাইজিগুলো। ১৩ ফেব্রুয়ারি থেকে ২০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চট্টগ্রামে হবে ১২ ম্যাচ। এরপর ২৩ ফেব্রুয়ারি থেকে বাকি সব ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে ঢাকায়।

এর আগে ভারতে অনুষ্ঠিত হওয়া ওয়ানডে বিশ্বকাপের আগে গেল সেপ্টেম্বর মাসে রাজধানীর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) হয় দশম আসরের ড্রাফট। সেখানে পছন্দমতো খেলোয়াড়দের নিয়ে আসরের ৭টি দল সাজায় তাদের দল। এরপর অপেক্ষা ছিল এবারের আসর মাঠে গড়ানোর সময় সূচি নিয়ে।

এদিকে প্রতি আসরই মাঠে গড়ানোর আগেই এই আসরের সঙ্গী হিসেবে থাকে কোনো না কোনো বিতর্ক। সেই ধারাবাহিকতায় চলতি বছর অনুষ্ঠিত হওয়া আসরটিতে ছিল সমালোচনা। আর তার কারণ ছিল শুরু থেকে না থাকা ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম (ডিআরএস)। বিশ্বের বিভিন্ন ফ্রাঞ্চাইজি এবং আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে গেল কয়েক বছর ধরেই ব্যবহার হয়ে আসরে ডিআরএস।

তবে বিপিএলে এই সুবিধা না থাকায় অবাক হয় অনেকে। তার পরিবর্তে রাখা হয় অলটারনেটিভ ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম (এডিআরএস)। যা ক্রিকেট দুনিয়ায় পুরোপুরি অপরিচিত। সেসময় ডিআরএস ব্যবস্থা না আনতে পারার বিষয়ে বিসিবি জানিয়েছিল,‘ বিপিএল চলাকালীন সময়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ও অনেকগুলো ফ্রাঞ্চাইজি লিগ চলবে। যার জন্যও চেয়েও ডিআরএস সিস্টেম আনতে পারেনি তারা।’ যদিও পরে দ্বিতীয় রাউন্ড থেকে যুক্ত হয় এই সিস্টেম। তবে এবার ধারণা করা হচ্ছে আসরের শুরুর থেকেই ম্যাচগুলোতে থাকবে ডিআরএস।

Check Also

নিউজিল্যান্ডকে হোয়াইটওয়াশ করলো অস্ট্রেলিয়া

শেরপুর ডেস্ক:তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে জয় পায় অস্ট্রেলিয়া। এক ম্যাচ হাতে রেখে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × four =

Contact Us