Home / বিদেশের খবর / গিনিতে সেনা বিদ্রোহে প্রেসিডেন্ট আটক

গিনিতে সেনা বিদ্রোহে প্রেসিডেন্ট আটক

শেরপুর ডেস্কঃ গিনিতে শুরু হয়েছে সেনা বিদ্রোহ। নতুন সরকার গঠনের কথা জানিয়েছেন এলিট ফোর্সের সেনাপ্রধান। গ্রেপ্তার হয়েছেন প্রেসিডেন্ট আলফা কনডে। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

রবিবার (৬ সেপ্টেম্বর) ভোর থেকেই গিনির রাজধানীতে গুলির শব্দ শোনা যেতে শুরু করে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, প্রেসিডেন্টের বাসভবনের সামনে গুলির লড়াই চলছে। প্রাথমিকভাবে মনে করা হয়েছিল, প্রেসিডেন্ট আলফা কনডে পালিয়ে গেছেন। পরে এলিট ফোর্সের সেনারা জানান, প্রেসিডেন্টকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এ নিয়ে দেশের জাতীয় টেলিভিশন চ্যানেলে একটি বিবৃতি দেন এলিট ফোর্সের সেনাপ্রধান মামাডি দৌমবউয়া। তিনি জানান, দ্রুত অস্থায়ী সরকার তৈরি করে শাসনকাজ শুরু হবে। একইসঙ্গে নতুন সংবিধান তৈরির কাজও শুরু হবে।

এলিট ফোর্সের প্রধান গিনির জাতীয় পতাকা পাশে রেখে বিবৃতি দেন। তার পাশে আটজন সশস্ত্র সেনা দাঁড়িয়ে ছিল। বিবৃতি বর্তমান প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ করেন তিনি। তার বক্তব্য, একনায়কতন্ত্র চালাচ্ছিলেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট। দুর্নীতি এবং রাজনৈতিক অস্থিরতা চরমে পৌঁছেছিল। সে কারণেই এলিট ফোর্স বিদ্রোহের সিদ্ধান্ত নেয়। প্রেসিডেন্ট এখন তাদের হেফাজতে আছেন বলে জানিয়ে দিয়েছেন সেনাপ্রধান। তার বক্তব্য, নতুন করে সরকার গঠন করা হবে। নতুন সংবিধান তৈরি হবে। নতুন সরকার হবে মানুষের সরকার। ক্ষমতা একজন বা কয়েকটি পরিবারের হাতে থাকবে না। সকলে রাজনীতিতে অংশ নেওয়ার অধিকার পাবেন।

Check Also

ইন্দোনেশিয়ার জেলখানায় অগ্নিকাণ্ডে নিহত ৪০

শেরপুর ডেস্কঃ ইন্দোনেশিয়ার একটি জেলখানায় ভয়াবহ আগুনে কারারক্ষী ও কয়েদিসহ কমপক্ষে ৪০ জন নিহত হয়েছেন। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × three =

Contact Us