Home / বগুড়ার খবর / কাহালু / কাহালুতে এনজিও কর্মী হত্যা মামলার প্রধান আসামী সহ গ্রেফতার ৪

কাহালুতে এনজিও কর্মী হত্যা মামলার প্রধান আসামী সহ গ্রেফতার ৪

শেরপুর নিউজ ২৪ ডট নেটঃ “উদ্দীপন” এনজিও বগুড়ার কাহালু শাখার কর্মী এস এম শাহরিয়ার (৪৫) হত্যা মামলার প্রধান আসামী রাজু আহম্মেদ সহ ৪ জনকে গ্রেফতার করেছেন কাহালু থানা পুলিশ।

বগুড়ার সহকারি পুলিশ সুপার (নন্দীগ্রাম সার্কেল) আহম্মেদ রাজিউর রহমান এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে ও কাহালু থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ জিয়া লতিফুল ইসলাম দিক-নির্দেশনায় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও কাহালু থানা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ মাহমুদ হাসান ও কাহালু থানার সেকেন্ড অফিসার ডেভিড হিমাদ্রী বর্মা সঙ্গীয় অফিসার ফোর্স সহ বরিশাল জেলার মুলাদী থানা পুলিশের সহযোগিতায় অভিযান চালিয়ে সংশ্লিষ্ট থানা এলাকার দূর্গম এলাকা হতে গত শনিবার বিকেলে মামলার প্রধান আসামী রাজু আহম্মেদ (২৫), রাজুর পিতা আমজাদ হোসেন ওরফে ওসমান (৫২), মা মর্জিনা বেগম (৪৫) ও রাজুর স্ত্রী নাজমা বেগম (২৩)কে গ্রেফতার করেন। উক্ত ৪ জন আসামী বাড়ী বগুড়ার সদর উপজেলার এরুলিয়া বানদীঘি গ্রামে। আসামীরা কাহালুর দামাই গ্রামের মিলু হাজীর বাড়ী ভাড়া নিয়ে বসবাস করতেন।

সোমবার বগুড়ার সহকারি পুলিশ সুপার (নন্দীগ্রাম সার্কেল) আহম্মেদ রাজিউর রহমান কাহালু থানায় প্রেস ব্রিফ্রিংয়ে সাংবাদিকদেরকে জানান, এটি একটি পূর্ব পরিকল্পিত হত্যাকান্ড। মামলার প্রধান আসামী রাজু আহম্মেদ সহ অন্যান্য আসামীরা টাকা ও মোটর সাইকেল ছিনতাইয়ের জন্য এনজিও কর্মী শাহরিয়ারকে টার্গেট করে। গত মঙ্গলবার দুপুর ২ টায় দিকে মামলার প্রধান আসামী রাজু তার ভাড়া বাড়ীতে টাকা ও মোটর সাইকেল হাতিয়ে নেওয়ার জন্য কৌশলী এনজিও কর্মী শাহরিয়ারকে ডেকে নেন। আসামীরা শাহরিয়ারকে মাথায় ভারী শীল দ্বারা একাধিকবার আঘাত করিয়া মাথা থেতলিয়া ও পরে শ্বাসরুদ্ধ করিয়া মৃত্যু নিশ্চিত করিয়া আনুমানিক ৪৩ হাজার টাকা ও মোটর সাইকেল হাতিয়ে নেয়। তারপর আসামীরা শাহরিয়ার লাশ ভাড়া বাড়ীর ঘরের ভেতরে বিভিন্ন প্লাষ্টিকের ও চটের বস্তা এবং কাপড় দ্বারা গুম করে রাখে।

গ্রেফতারের সময় আসামীদের কাছ থেকে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত আলামত, লুন্ঠিত অর্থের মধ্যে ২১ হাজার ৭ শত টাকা ও একটি নকিয়া মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে আসামীরা হত্যাকান্ডের দোষ স্বীকার করেছেন। সোমবার গ্রেফতারকৃত আসামীদেরকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

প্রেস ব্রিফ্রিংয়ে উপস্থিত ছিলেন কাহালু থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ জিয়া লতিফুল ইসলাম, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ মাহমুদ হাসান, কাহালু থানার সেকেন্ড অফিসার ডেভিড হিমাদ্রী বর্মা প্রমূখ।

Check Also

কুলখানি খেয়ে ৩৪ ব্যক্তি হাসপাতালে!

বগুড়ার কাহালু উপজেলায় কুলখানি দাওয়াত খেয়ে ৩৪ জন ব্যক্তি অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ফুড …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

16 + three =

Contact Us