Home / বগুড়ার খবর / ধুনট / ধুনটে ৫দিনেও খোঁজ মেলেনি ছাবারন বেগমের

ধুনটে ৫দিনেও খোঁজ মেলেনি ছাবারন বেগমের

এম.এ.রাশেদ ঃ বগুড়ার ধুনটে নিখোঁজের ৫দিনেও খোজ মেলেনি ছাবারন বেগম (৬০) নামের এক মহিলার। সে উপজেলার এলাঙ্গী ইউনিয়নের শৈলমারী গ্রামের মৃত মাদার ফকিরের মেয়ে।

নিখোঁজ ছাবারন বেগমের ভাতিজা আবু সাঈদ জানান, এলাঙ্গী ইউনিয়নের শৈলমারী গ্রামের মৃত মাদার ফকিরের মেয়ে ছাবারন বেগমের সাথে একই ইউনিয়নের রাঙ্গামাটি গ্রামের তফিজ উদ্দিন নামের জনৈক ব্যাক্তির সাথে বিবাহ হয়েছিলো। বিগত কয়েক বছর আগে তাদের বিবাহ বিচ্ছেদের পর থেকে ছাবারন বেগম তার বাবার বাড়িতে থাকতেন। সে প্রায় ২ বছর যাবৎ মানসিক রোগে আক্রান্ত। ছাবারনের মেয়ে শিউলী খাতুন ও জামাই শাহীন আলমের সাথে তার ভাতিজা আশাদুল ইসলাম ঢাকার মিরপুর ১৩ নং এ একটি পোষাক কারখানায় কাজ করে। গত ১৪ সেপ্টেম্বার শনিবার ভাতিজা আশাদুল ইসলামের মাথা ফেটে গেছে বলে সংবাদ পায় ছাবারন বেগম। সংবাদ পওয়ার পর থেকে তাকে আর খুজে পাওয়া যাচ্ছেনা। তার কাছে কোন টাকা পয়সা নেই, সে ঢাকাতেও জায়নি বলে জানান ছাবারনের ভাতিজা আবু সাঈদ। আবু সাঈদ শৈলমারী গ্রামের আব্দুস সামাদের ছেলে। সে এলাঙ্গী বাজারে মনোহারী দোকানের ব্যবসা করে। ছাবারনের হারানোর বিষয়ে ধুনট থানায় কোন জিডি করা হয়নি বলেও জানান আবু সাঈদ। তিনি আরো জানান, নিখোঁজের সন্ধান চেয়ে ছাবারনের ছবি ও ঠিকানা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ ইসমাইল হোসেন জানান, নিখোঁজ ছাবারন বেগমের পক্ষ থেকে কেউ থানায় ডিজি করে নাই।

Check Also

ধুনটে ড্রেজার মেশিন গুড়িয়ে দিয়েছে প্রশাসন

এম.এ রাশেদ: বগুড়ার ধুনট উপজেলার নিমগাছী ইউনিয়নের জয়শিং ও ধামাচামা গ্রামের ৪ পয়েন্টে বালু উত্তোলন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

three + three =