Home / বিশেষ প্রতিবেদন / শেরপুরে পাঁচ ঘাটে নৌকাই ভরসা!

শেরপুরে পাঁচ ঘাটে নৌকাই ভরসা!

শেরপুর নিউজ ২৪ ডট নেটঃ বগুড়া জেলার শেরপুর উপজেলার বাঙালী নদীর পাচঁটি ঘাটে এখনো পারাপারের জন্য প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষের ভরসা খেয়া নৌকা। এসব এলাকায় দীর্ঘদিনেও কোন ব্রীজ নির্মিত না হওয়ায় ঝুঁকি নিয়ে নদী পারাপার হতে হচ্ছে এলাকাবাসীদের।
সরেজমিন গিয়ে দেখা গেছে, শেরপুর উপজেলার খামারকান্দি ইউনিয়নের ঝাঁজড়-বিলনোথাড় ঘাটে বাঙালী নদী পারাপারের একমাত্র অবলম্বন খেয়া নৌকা। স্বাধীনতার পর থেকে আজ পর্যন্ত ৪৯ বছরে বার বার ব্রীজ নির্মাণের প্রতিশ্র“তি দেয়া হলেও সেখানে আজও কোন কাজই শুরু হয়নি।
ফলে শেরপুর থেকে ঝাজড় ঘাট হয়ে ধুনটের এলাঙ্গী পর্যন্ত চলাচলকারী শত শত মানুষকে খেয়া নৌকায় পারাপার হতে হয়। অনেকে আবার কয়েক কিলোমিটার রাস্তা ঘুরে সড়কপথে চলাচল করতে বাধ্য হন।
একই ভাবে খানপুর-সুঘাট ইউনিয়নের চকখানপুর-চকধলী ঘাট, খানপুরপুর্বপাড়া-কল্যাণী ঘাটেও প্রতিদিন শত নারী-পুরুষ কর্মজীবিরা নদী পার হচ্ছেন খেয়া নৌকায়।
সুঘাট ইউনিয়নের চোমরপাথালিয়া ও সুঘাট ঘাটে বাঙালী নদী পারাপারেরও একমাত্র অবলম্বন নৌকা। এখানে ল ল টাকা ব্যয়ে একটি দর্শণীয় ঘাট নির্মিত হলেও আজও ব্রীজ নির্মাণের কাজ শুরু হয়নি। ফলে গুরুত্বপুর্ণ এই স্থানে নদী পার হতে হলে নৌকার কোন বিকল্প নেই। বাঙালী নদীর আরও একটু দেিণ গেলে ঐতিহ্যবাহী সকাল বাজার মধ্যভাগ নদীর অপরপ্রান্তে সীমাবাড়ী ইউনিয়নের নলুয়া ঘাট। এ ঘাটে প্রতিদিন সকালে শত শত মানুষ দুধ কেনাবেচার জন্য মধ্যভাগ বাজারে যান নৌকায় চড়ে।
এলাকাবাসী জানান, ব্রীজ নির্মাণ হলে এলাকাবাসীর যাতায়াত যেমন সহজ হবে। তেমনি এলাকায় ব্যবসা বানিজ্যের প্রসার ঘটবে। ব্রীজ না থাকায় বর্ষাকালে ঝুকিঁ নিয়ে নদী পারাপার হতে হয়। অনেক সময় নৌকা ডুবে যায়।
এ ব্যাপারে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রকৌশলী নূর মোহাম্মাদ এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ব্রীজ নির্মাণের পরিকল্পনা আছে।

Check Also

শেরপুর উপজেলা পরিষদের উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভা

শেরপুরনিউজ২৪ডটনেটঃ বগুড়ার শেরপুর উপজেলা পরিষদের মাসিক উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৪জুন) দুপুর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

11 + thirteen =

Contact Us